সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

৩শ’ পরিবারে পৌঁছে গেল প্রভাকর ক্লাবের ইফতার সামগ্রী

প্রকাশিত: শুক্রবার, এপ্রিল ২৩, ২০২১

ক্রমবর্ধান করোনা সংক্রমণের কারণে কর্মহীন হয়ে ঘরবন্দি হয়ে পড়া নিন্ম আয়ের ৩০০ পরিবারের কাছে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছে সামাজিক সংগঠন প্রভাকর ক্লাব।

শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) রাতে নগরীর ৭নং পশ্চিম ষোলোশহর এলাকার বিবিরহাট কাঁচাবাজার, বশর মার্কেট, খ্রিষ্টান সেমেট্রি রোড, বিবিরহাট পশ্চিম পাড়া, সলিম উল্লাহ শাহ রোডসহ বিভিন্ন স্থানে হতদরিদ্র ও খেটে খাওয়া মানুষদের বাড়িতে এসব ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দেন সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকরা।

বিতরণ করা প্রত্যেকটি ইফতারের প্যাকেটে রয়েছে- ১০ কেজি চাল, ২ কেজি ছোলা, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি ছিঁড়া, আধা কেজি ট্যাংক, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পিয়াজ ও ২৫০ গ্রাম সেমাই।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ক্লাবের সদস্যরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দিচ্ছেন ইফতার সামগ্রীর প্রত্যেকটি প্যাকেট। নিত্য প্রয়োজনীয় এসব ইফতার সামগ্রীর প্যাকেট হাতের নাগালে পেয়ে যারপরনাই খুশি এলাকার হতদরিদ্র ও নিন্ম আয়ের মানুষজন। তারাও স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুশিমনে গ্রহণ করছেন এসব ইফতার সামগ্রী।

এসময়য় ইফতারের প্যাকেট হাতে পাওয়া হালিমা বেগম নামে এক নারী বলেন, ‘ অন্যের বাসায় কাজ করতাম। লকডাউনের কারণে কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। কোথাও কাজ পাচ্ছি না, ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের দু’বেলা দু’মুঠো খাবারের ব্যবস্থা করতে খুব কষ্ট হচ্ছে। এসময় প্রভাকর ক্লাব যে সাহায্য করেছে তা আমি জীবনেও ভুলবো না। আল্লাহ তাদের রহমত করুক।’

আয়োজন সংশ্লিষ্টরা জানান, পবিত্র রমজান মাস ও সর্বাত্মক লকডাউনে অসহায়, দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এ উদ্যোগ নিয়েছে ক্লাব কমিটি। গতবছরও একইভাবে ৩০০ পরিবারের কাছে ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত বছর মার্চ থেকে দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে সচেতনতামূলক মাইকিং, ফ্রি চিকিৎসাসেবা ক্যাম্প, ডোর টু ডোর জীবাণুনাশক স্প্রে, মাস্ক ও হ্যান্ড-স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে প্রভাকর ক্লাব।

আজকের ইফতার সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচিতে ক্লাবের সভাপতি এস. এম. সাইফুল্লাহ সাইফু, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. শামশুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মো. সিরাজ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম টিপু, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. আফিফ রফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হান্নান আমিন, অর্থ সম্পাদক এস. এম. ইমরান উল্লাহ, সহ-অর্থ সম্পাদক মো. ইরফানুল হক লিমন, সমাজকল্যাণ ও ধর্মীয় সম্পাদক মো. রহিম উদ্দিন, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক, পাঠাগার সম্পাদক মো. রাশেদুল হাসান লেবু, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. ফজলে রাব্বি, যুব ও কারিগরি প্রশিক্ষন সম্পাদক মো. জাবেদ আহমেদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. নুর উদ্দিন, অফিস সম্পাদক মো. জামাল হোসেন, সদস্য মো. দিদারুল আলম দিদার, সদস্য মো. অহিদুল আলম অহিদসহ প্রমুখ নেতৃবন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৫ সালে ‘একটি সমাজকল্যাণ, স্বেচ্ছাসেবী, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়ামূলক সংগঠন’- স্লোগানকে সামনে রেখে প্রতিষ্ঠিত হয় প্রভাকর ক্লাব। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নানা ধরণের জনকল্যাণমুখী কার্যক্রম চালিয়ে আসছে ক্লাবটি। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০০ সালে চালু করা হয় গণশিক্ষা কার্যক্রম। যেখানে নিয়মিত ৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পাঠদান দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া অসহায় ছাত্র-ছাত্রীদের প্রাথমিক আরবী শিক্ষা দিতে চালু করা হয় ‘মক্তব’। সেখানেও ৩৫ জন ছাত্র-ছাত্রী বিনামূল্যে ইসলামিক শিক্ষা অর্জনের সুযোগ পাচ্ছে। রয়েছে আধুনিক মানসম্পন্ন কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।

প্রায় দেড় শতাধিক নিন্ম-মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ের বিয়েতে নানাভাবে অর্থ সহায়তা দিয়ে আসা প্রভাকর ক্লাব এখন এ এলাকার মানুষের কাছে ভরসার অনন্য ঠিকানা হয়ে উঠেছে।

আরো পড়ুন