বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

কাজীর দেউড়ি এলাকায় সংঘর্ষ

স্বেচ্ছাসেবক দলের ১৫০ নেতাকর্মীর নামে মামলা

প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৭, ২০২২

মামলায় সেচ্ছাসেবক দলের এসব নেতাদের পলাতক আসামি হিসেবে দেখানো হয়েছে।

নগর প্রতিবেদক::

দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিলে থেকে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ২৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয় ১৫০ জন নেতাকর্মীকে আসামিকে করে মামলা করা হয়েছে।

বুধবার (২৬ অক্টোবর) রাতে নগরের কোতোয়ালী থানায় মামলাটি করেন ওই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাদ্দাম হোসেন।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয় ১৫০ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মনজুর আলম তালুকদারসহ ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার গ্রেফতারকৃত আসামি দেখানো হয়েছে, জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক মনজুর আলম তালুকদার, আনোয়ারা উপজেলার আহবায়ক নঈম উদ্দীন চৌধুরী, ইকবাল হায়দার চৌধুরী, বাঁশখালীর আবদুল আলিম, পটিয়ার আবদুল আজিজ, বাঁশখালীর বেলাল উদ্দীন ববাদশা, পটিয়ার মুরাদুল আলম, চন্দনাইশের জয়নাল আবেদিন, পটিয়ার আরমান, বাঁশখালীর ওমর ফারুক, পটিয়ার তোফায়েল আহমদ, বোয়ালখালীর নঈম উদ্দীন, বাঁশখালীর আসমান, বোয়ালখালীর মিনহাজুল ইসলাম, হাফিজুল ইসলাম।

পলাতক হিসেবে মামলায় আসামি করা হয়েছে, দক্ষিণ জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুল ইসলাম রাহী, দক্ষিণ জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব জমির উদ্দীন মানিক, আনোয়ারা উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আতিকুর রহমান, শামসুল ইসলাম, বাঁশখালী পৌরসভার যুগ্ম আহবায়ক মোশাাররফ হোসেন, বোয়ালখালীর আহবায়ক শহিদুল্লাহ মানিক, বাঁশখালীর আহবায়ক হেফাজ উদ্দীন, সদস্য সচিব দিদার, জেলার সাবেক যুগ্ম সম্পাদক কামাল উদ্দীন, সাতকানিয়ার সদস্য জাবেদ জাহাঙ্গীর রিপন, আনোয়ারার যুগ্ম আহবায়ক হেলাল উদ্দীন খান, নেজাম উদ্দীন, নুরুল আলম, জেলা কমিটির সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আবদুস সবুর।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) বিকেলে নগরের কাজীর দেউড়ির নাসিমন ভবনে বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে নূর আহমেদ সড়কে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিলে বাধা দিলে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।

এতে ৪ পুলিশ সদস্য আহত ও ১০ নেতাকর্মীকে আটক এবং ২০-২৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে দাবি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে নতুন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে মিছিল বের করতে চেয়েছিল চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা। মিছিল বের করার সময় পুলিশ বাধা দেয়।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মিছিলকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় পুলিশ ধাওয়া দিয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

আরো পড়ুন