বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

রাজনীতিকে কি বিদায় জানাবেন খালেদা জিয়া!

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৭, ২০২১

আপাতত রাজনীতি নিয়ে ভাবছেন না বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার এখন মূ’ল লক্ষ্য বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হওয়া। আর পরিবারের সদস্যদেরও একই চাওয়া। আপন বলতে এক বোন আর এক ভাই জীবিত আছেন খালেদা জিয়ার।

তারাই স’রকারের স’ঙ্গে দেন-দরবার করে মুক্ত করেছেন খালেদা জিয়াকে। সুতরাং তারা চাচ্ছেন না স’রকারের শর্ত ভঙ্গ করে খালেদা জিয়া আবার কা’রাগারে যাক। সেজন্য তারা চেষ্টা চা’লিয়ে যাচ্ছেন স’রকারের নিয়মের মধ্যে থেকে বিদেশে খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা হোক।

দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের স’ঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, খালেদা জিয়া নিজেও আপাতত রাজনীতিতে সক্রিয় হতে চাচ্ছেন না।গত ২৫ মার্চ মুক্তির পর সাড়ে চার মাস অতিবাহিত হলেও প্রকাশ্যে কোনো রাজনৈতিক বক্তব্য বিবৃতি দেননি সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

এমনকি দলের মহাস’চিব ও স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ছাড়া অন্য কারও স’ঙ্গে দেখাও করেননি। ঐক্যফ্রন্ট ও ২০দলীয় জোটের ২৬টি দলের মধ্যে শুধু নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না একবার সাক্ষাৎ পেয়েছেন।২০দলীয় জোটের নেতারা সাক্ষাতের আ’গ্রহ প্রকাশ করলেও কেউ পাননি। এতে বোঝা যাচ্ছে, তিনি রাজনীতির চেয়ে চিকিৎসাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন।

আপাতত রাজনীতি নিয়ে ভাবছেন না বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার এখন মূ’ল লক্ষ্য বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হওয়া। আর পরিবারের সদস্যদেরও একই চাওয়া। আপন বলতে এক বোন আর এক ভাই জীবিত আছেন খালেদা জিয়ার।

তারাই স’রকারের স’ঙ্গে দেন-দরবার করে মুক্ত করেছেন খালেদা জিয়াকে। সুতরাং তারা চাচ্ছেন না স’রকারের শর্ত ভঙ্গ করে খালেদা জিয়া আবার কা’রাগারে যাক। সেজন্য তারা চেষ্টা চা’লিয়ে যাচ্ছেন স’রকারের নিয়মের মধ্যে থেকে বিদেশে খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা হোক।

দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের স’ঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, খালেদা জিয়া নিজেও আপাতত রাজনীতিতে সক্রিয় হতে চাচ্ছেন না।গত ২৫ মার্চ মুক্তির পর সাড়ে চার মাস অতিবাহিত হলেও প্রকাশ্যে কোনো রাজনৈতিক বক্তব্য বিবৃতি দেননি সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

এমনকি দলের মহাস’চিব ও স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ছাড়া অন্য কারও স’ঙ্গে দেখাও করেননি। ঐক্যফ্রন্ট ও ২০দলীয় জোটের ২৬টি দলের মধ্যে শুধু নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না একবার সাক্ষাৎ পেয়েছেন।২০দলীয় জোটের নেতারা সাক্ষাতের আ’গ্রহ প্রকাশ করলেও কেউ পাননি। এতে বোঝা যাচ্ছে, তিনি রাজনীতির চেয়ে চিকিৎসাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন।

আরো পড়ুন