শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২

বিয়ের তিন মাস না পেরুতেই ফটিকছড়িতে গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, মে ১৮, ২০২১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ফটিকছড়ি

ফটিকছড়ি উপজেলা সদরের বিবিরহাটে মোমিন টাওয়ার নামের একটি বহুতল ভবনের ছাদ থেকে পড়ে জেসমিন আক্তার (১৮) নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ৩ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধু জেসমিন উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভাধীন ৪ নং ওয়ার্ডের ওমান প্রবাসী আরাফাতের স্ত্রী ও পশ্চিম সুন্দরপুর কান্দিরপাড় চিকন মিয়া মিস্ত্রীর বাড়ীর দুবাই প্রবাসী আব্দুর রহিমের ছোট মেয়ে।

জানা যায়, শ্বাশুড়- শ্বাশুড়ীর সাথে গৃহবধু জেসমিন ঐ ভবনের ৫ তলায় সি-১০৪ নাম্বার বাসায় ভাড়ায় থাকতেন।

প্রত্যক্ষদর্শী শিমুন জানান, দুপুর ৩ টার দিকে হঠাৎ করে ৭ তলা ভবনের ছাদ থেকে নিচে পড়ে গৃহবধু জেসমিন। পরে মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে প্রথমে নাজিরহাটস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়৷

এদিকে মেয়ের পরিবার শ্বশুড় বাড়ীর লোকজন ধাক্কা দিয়ে তাকে ৭ তলা ভবনের ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেন।

জানা গেছে, মাত্র ৩ মাস আগে প্রবাসে বসে মুঠোফোনে আরাফাতের সাথে জেসমিনের বিয়ে হয়। পরে কোন রকম অনুষ্ঠান ছাড়াই শ্বাশুড়ী তার ভাড়া বাসায় পুত্রবধুকে নিয়ে আসেন। সেই থেকে শ্বশুড়-শ্বাশুড়ীর সাথে নানা বিষয়ে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো বলে জানান জেসমিনের পরিবার।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফটিকছড়ি থানার ওসি রবিউল ইসলাম বলেন লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন