রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

নুরকে গুম করার চেষ্ঠার অভিযোগ ইসলামাবাদীর

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, এপ্রিল ৬, ২০২১

নুরুল হক নুর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরকে গুমের চেষ্টা হয়েছিল বলে অভিযোগ এনেছে কওমি মাদরাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম। সংগঠনটির দাবি, ভারতীয় আগ্রাসানের বিরুদ্ধে সরব থাকায় তাকে গুমের চেষ্টা হয়েছিল।

সোমবার (৫ এপ্রিল) হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী এক বিবৃতিতে নুরকে গুমের চেষ্টার অভিযোগ আনেন। তিনি সারাবাংলাকে জানিয়েছেন, নুরের ফেসবুক লাইভ থেকে তিনি বিষয়টি জানতে পেরেছেন।

বিবৃতিতে আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, ‘ডাকসুর সাবেক ভিপি নুর বর্তমান সময়ে রাজপথের একজন জনপ্রিয় দেশপ্রেমিক সাহসী তরুণ নেতা। নুরকে গুম করার অপচেষ্টা দেশবিরোধী কাজ। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। নূর এ দেশের গণমানুষের পক্ষে কথা বলেন। দেশের স্বার্থ ও সার্বভৌমত্বের পক্ষে ভারতীয় আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তিনি সরব থাকেন। সবসময় স্বৈরতন্ত্রের সমালোচনা করেন। সে কারণে এ দেশের ভারতপন্থী রাজনৈতিক মহল তাকে সবসময় হুমকি মনে করে।’

আজিজুল হক আরও বলেন, ‘দেশের জনগণ এখন সজাগ রয়েছে। তারা গুম-খুনকে আর বরদাশত করবে না।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আজিজুল হক ইসলামাবাদী সারাবাংলাকে বলেন, ‘গতকাল (রোববার) রাতে ঢাকার বাড্ডা এলাকায় নুরের গাড়ি আটকে তাকে তুলে নেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। যারা তুলে নিতে এসেছিলেন, তারা সাদা পোশাকে ছিলেন। কিন্তু নুর ফেসবুক লাইভে চলে আসায় তাকে নিতে পারেনি। তবে তার সঙ্গে থাকা তিন জনকে আটক করে নিয়ে যায়। আমরা বলতে চাই, এটা স্পষ্টত নুরকে গুম করার অপচেষ্টা। তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে গ্রেফতার করুক, সমস্যা নেই। কিন্তু মাঝরাতে রাস্তায় গাড়ি আটকে তুলে নেওয়ার চেষ্টার আমরা নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।’

২০১৮ সালে দেশজুড়ে কোটা সংস্কারের আন্দোলনের মধ্য দিয়ে দৃশ্যপটে আসেন নুরুল হক নুর, যিনি নিজেকে তখন ছাত্রলীগ নেতা দাবি করতেন। এ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে গড়ে ওঠে ছাত্র অধিকার পরিষদ, যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন নুর।

২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেয় ছাত্র অধিকার পরিষদ। তাদের প্যানেল থেকে ভিপি নির্বাচিত হন নুর। এর আগ থেকেই অবশ্য নুর আওয়ামী লীগ সরকারের কড়া সমালোচক। বর্তমানেও তাকে সরকারের কট্টর সমালোচক হিসেবে পরিচিত ডা. জাফরুল্লাহ, মাহমুদুর রহমান মান্না, জোনায়েদ সাকীদের সঙ্গে একই মঞ্চে দেখা যায়। হেফাজতে ইসলামের পক্ষেও নিয়মিত সরব দেখা যায় নুরকে।

আরো পড়ুন