শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

নগরবাসীকে ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে সচেতন হতে হবে : ভারপ্রাপ্ত মেয়র

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২

নগর প্রতিবেদক::

নগরীর মুনির নগর ওয়ার্ডে মশক নিধনে ক্র্যাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আফরোজা কালাম।

আজ মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে ৩৭নং উত্তর মধ্যম হালিশহর মুনির নগর ওয়ার্ডে এই কার্যক্রমের শুভ সুচনাকালে তিনি বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে সমন্বিত মশক নিধন পদক্ষেপটিই হচ্ছে পরিবেশগত ব্যবস্থাপনা। আমাদের চারপাশের যেসব স্থানে এডিস মশা জন্ম নেয় সেসব স্থান সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মাঝে ধারণা দিতে হবে যাতে এডিস মশা জন্মাতে না পারে এবং নগরবাসী সচেতন হতে হবে।

তিনি বলেন, আবহাওয়াগত কারণে নগরীতে এখন মশার উপদ্রব বেড়েছে। এই ক্রাশ প্রোগ্রামের মাধ্যমে প্রতিটি ওয়ার্ডের ঝোঁপ-ঝাড় পরিষ্কার করা ও নালা-নর্দমায় জমাটবদ্ধ পানিতে মশার প্রজজন বৃদ্ধি পায় সেখানে ওষুধ ছিটানো হবে। ক্রাশ প্রোগ্রাম ছাড়াও চসিকের নিয়মিত কার্যক্রমের মধ্যে প্রতিদিন মশক নিধনে স্প্রে চলমান থাকবে।

ভারপ্রাপ্ত মেয়র আরো বলেন, পরিষ্কার ও বদ্ধ পানি এডিশ মশার প্রজনন ক্ষেত্র। তাই বাসা বাড়ির আশেপাশে ডাবের খোসা, ফুলের টব, ছাদ বাগান, ফ্রিজের ট্রে, এসির জমা পানি, পরিত্যাক্ত টায়ার, প্লাস্টিক বোতল ও পানির ড্রামে যাতে তিন দিনের বেশী সময় পানি জমে না থাকে সে দিকে সকলকে খেয়াল রাখতে হবে।

ভারপ্রাপ্ত মেয়র বলেন, ডেঙ্গু একটি ভাইরাসজনিত রোগ। সাধারণত বর্ষার মধ্যে জুলাই থেকে অক্টোবরের মাঝে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে যায়। বর্তমানে কারও জ্বর বা ডেঙ্গুর লক্ষণ দেখা দিলে সাথে সাথে চসিক জেনারেল হাসপাতাল ও আরবান হেলথ সেন্টারে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার জন্য তিনি পরামর্শ দেন। এবং কার্যকরভাবে ডেঙ্গু দমন করতে হলে সিটি কর্পোরেশনের পাশাপাশি নগরবাসীকে ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে সচেতন হতে হবে। ইতিমধ্যে চসিক জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও মোবাইলকোর্টের মাধ্যমে ছাদবাগান, নির্মাণধীন ইমারতসহ বিভিন্ন বসতবাড়ীতে অভিযান শুরু করেছে। এই বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত মেয়র নগরবাসীর সহযোগীতা কামনা করেন।

ভারপ্রাপ্ত মেয়র ক্র্যাশ প্রোগ্রাম উদ্বোধন শেষে জনসচেতনাতার লক্ষ্যে র‌্যালী, স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, দোকান পাটে, বাসাবাড়িতে লিফলেট বিতরণ করেন এবং স্থানীয় আবাসিক এলাকার বিভিন্ন বাড়ি ঘরের ছাদ বাগান পরিদর্শন করেন।

এসময় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল মান্নান, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা ও মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম চৌধুরীপ্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন