মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২

দংশিত শরাব

প্রকাশিত: সোমবার, জুন ১৩, ২০২২

জেবুন্নেছা জোৎস্না

তোমার চোখের ঝলসানো মুদ্রায়
আমার ভালবাসা বেচা-কেনা দায়;
বিষন্ন বিভায়, এ কেমন বিদায়—
তুমি আসো নাই, তুমি থাকো নাই!
মহামায়ার দুঃখে এ শ্রাবণ পুড়ে
লবণাক্ত হৃদয় হিজল জলাশয়।
ভুলে গেছি হাসি, বলতে ভালবাসি-
ভুলে গেছি ঠিক কতো দূর যেতে মানা—
যেখান থেকে ইচ্ছে হলেও ফিরে আসা হয় না।

ফিরে আসা হয় না অসম্পূর্ণের কাছে—
হয় না যাওয়া ফেলে আসা দিনে-
হয় না আমাদের নিঃশ্বাস খুব কাছাকাছি—
নিত্য যারা ভাগাভাগি করে নিতো উত্তাপ!
মন খারাপের দিনে, জেনেছি সুর্য আমায় টানে—

আর আমি যখন জ্বলছিলাম দাউ-দাউ গনগনে
তুমি তখন অবশিষ্ট বৃষ্টিটুকু নিয়ে গেলে চলে!

হে বৃক্ষ, ফুলকীর জোছনা, বৃষ্টির রংধনু,
ফিরে আসা পথের পথিক—
জেনে নাও আমি ভালবেসেছি!

ভালবেসেছি তার বায়বীয় মেঘ – মন
বুকের গভীরে মরা জল প্রপাত—
নিষ্ঠুর অবহেলার শত খন্ড প্রস্তর!

সে দুঃখ দিলে সুগন্ধি সব যায় মরে —
ওষ্ঠের লালায় মোড়া চন্দ্রবোড়ার দংশিত শরাব-
অসুখের পেয়ালা আমার যেন নীলম্বরী দুঃখ
তাথৈ তাথৈ ভরা সহস্র শতাব্দীর অভিশাপ।

লেখিকা প্রবাসী

আরো পড়ুন