শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২

তারকাদের বাসায় চিকিৎসা নিতে বললেন মন্ত্রী

প্রকাশিত: শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১

ভারতের প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, ছাড়িয়ে যাচ্ছে আগেরদিনের সব রেকর্ড। হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগীদের স্থান সংকুলান করতে পারছে না প্রশাসন। যার ফলে সংক্রমণের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু সংখ্যাও।

এমতাবস্থায় শচিন টেন্ডুলকারসহ অন্যান্য তারকাদেরকে হাসপাতালের বদলে বাসায়ই চিকিৎসা নিতে বললেন ভারতের মহারাষ্ট্রের বস্ত্রমন্ত্রী আসলাম শেখ। তার মতে, শচিনরা হাসপাতালের একটি সিট দখল না করলে, সেটি অন্য জরুরি রোগীকে দেয়া সম্ভব হবে।

গত মাসে রোড সেফট ওয়ার্ল্ড সিরিজে অংশ নেয়ার পর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন শচিন। টুর্নামেন্টে সকল স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ মেনে চলা হলেও, করোনার ছোবল থেকে বাঁচতে পারেননি মাস্টার ব্লাস্টারখ্যাত এ ব্যাটসম্যান।

প্রথম কিছুদিন নিজের বাড়িতেই চিকিৎসা নেন শচিন। পরে স্বাস্থ্যের কোনো অবনতি না ঘটলেও, সতর্কতাস্বরুপ মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। এটিই মানতে পারছেন না মহারাষ্ট্রের বস্ত্রমন্ত্রী আসলাম শেখ।

ভারতের সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউকে আসলাম বলেছেন, ‘যেসব তারকাদের মধ্যে উপসর্গহীন সংক্রমণের দেখা মেলে, তাদের হাসপাতালের একটি সিট দখল না করে, বাসায়ই চিকিৎসা নেয়া উচিত। শচিন টেন্ডুলকার, অক্ষয় কুমারদের মতো তারকাদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার প্রয়োজন ছিল না। হাসপাতালের বেডগুলো যাদের প্রয়োজন তাদের জন্য ছাড়া উচিত।’

উল্লেখ্য, শচিনের সঙ্গে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে অংশ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ভারত লিজেন্ডস দলের আরও তিন খেলোয়াড় সুব্রামানিয়াম বদ্রিনাথ, ইউসুফ পাঠান এবং ইরফান পাঠান। তবে তারা প্রত্যেকেই এখন সুস্থ হয়েছেন।

আরো পড়ুন