রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

চাঁদাবাজির মামলায় যুবলীগ নেতা সোলাইমান বাদশাসহ গ্রেপ্তার ২

প্রকাশিত: সোমবার, এপ্রিল ১৯, ২০২১

নগরীর ২ নম্বর গেটে চাঁদাবাজির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কথিত যুবলীগ নেতা সোলাইমান বাদশা (৩৩) কে তার এক সহযোগিসহ আটক করেছে পুলিশ। আটক তার সহযোগির নাম মো. ওমর ফারুক। তারা দুইজনই সিএমপির তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার (১৮ এপ্রিল) রাতে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। গ্রেপ্তার সোলাইমান বাদশা প্রকাশ টোকাই সোলাইমান ষোলশহরের আল ফালাহ গলির আবু তাহেরের ছেলে। তার সহযোগী গ্রেপ্তার ওমর ফারুক চান্দগাঁওয়ের খাঁজারোডের মো. সিরাজের ছেলে।

সোলাইমান বাদশা নিজেকে শুলকবহর ওয়ার্ড যুবলীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বলে দাবি করে আসছে। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চত করেন পাঁলাইশ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, নগরীর ষোলশহর থেকে মুরাদপুর এলাকা পর্যন্ত বাস্তবায়নাধীন চট্টগ্রাম জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পে কর্মরত ২ জন শ্রমিককে অপহরণ করে তারা। ২ লাখ টাকা দাবিতে অপহৃত শ্রমিকদের একটি বাড়িতে আটকিয়ে রেখে মারধর করে। দাবিকৃত টাকা না দিলে জিম্মিতে থাকা দু’জন শ্রমিককে হত্যার হুমকি দেয় সোলাইমান বাদশা। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সোলাইমান বাদশা পেশায় একজন ছিনতাইকারী। সিনেমায় যে স্টাইলে ছিনতাই করা হয় ওই ধরণের স্টাইল অনুকরণ করে সে ছিনতাই করে। গ্রেপ্তার উভয়ে সিএমপির তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী। এছাড়া সোলাইমানের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ রয়েছে ৪টি মামলা।

আরো পড়ুন