সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

কোম্পানীগঞ্জে ফের সংঘর্ষ, ভাইস চেয়ারম্যানসহ আহত ৬

প্রকাশিত: শুক্রবার, মে ৭, ২০২১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট , নোয়াখালী :

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে কাদের মির্জার সমর্থক ও আওয়ামী লীগের সমর্থকদের মধ্যে ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ছয়জন আহত হয়েছেন। কাদের মির্জার অনুসারীরা হামলা চালিয়ে পাঁচটি ড্রিম লাইন গাড়ি ভাঙচুর করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

শুক্রবার (৭ মে) জুমার নামাজ শেষে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আবু নাছের চৌধুরী বাড়ির দরজায় এবং সন্ধ্যায় বসুরহাট বাসস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে।এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের অনুসারী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আজম পাশা চৌধুরী রুমেল, তার ভাতিজা মঞ্জিল চৌধুরী, জয় চৌধুরী ও যুবলীগ নেতা আরমান চৌধুরী আহত হয়েছেন বলে ভাইস চেয়ারম্যান নিজেই জানিয়েছেন।

অপরদিকে কাদের মির্জার অনুসারী হিসেবে পরিচিত ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী শিমুল ও তার ভাই নুরুল ইসলাম সোহেল চৌধুরী আহত হয়েছেন বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন কাউন্সিলর শিমুল চৌধুরী।

আহতদের মধ্যে মঞ্জিল চৌধুরী ও শিমুল চৌধুরীকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ভাইস চেয়ারম্যান রুমেল চৌধুরী জানান, আবু নাছের চৌধুরী জামে মসজিদ থেকে জুমার নামাজ পড়ে বের হওয়ার পর শিমুল চৌধুরীর নেতৃত্বে কাদের মির্জার অনুসারীরা এ হামলা চালান।অপরদিকে শিমুল চৌধুরী বলেন, আরমান চৌধুরীর নেতৃত্বে একদল হামলা চালিয়ে তার ঘরের জানালার কাচ ভাঙচুরসহ ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেন।

এদিকে রুমেল চৌধুরীর বড় ভাই নোয়াখালী জেলা পরিষদ সদস্য আক্রাম উদ্দিন চৌধুরী সবুজ জানান, তাদের বাড়িতে সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সন্ধ্যায় কাদের মির্জার লোকজন হামলা চালিয়ে লকডাউনে বসুরহাটে থাকা তার পাঁচটি ড্রিম লাইন গাড়ি ব্যাপক ভাঙচুর করেছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর বিভিন্নস্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো পড়ুন