শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২

উপজেলা চেয়ারম্যানদের বকেয়া সম্মানী ভাতার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, মে ১১, ২০২১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রাঙামাটি :

রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলার ৪র্থ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যানদের সম্মানী ভাতা ও ভ্রমন ভাতা সহ বিভিন্ন বকেয়া ভাতা প্রদানের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা।

সোমবার রাঙামাটি প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন তিন পার্বত্য জেলার সাবেক চেয়ারম্যানরা।

সংবাদ সম্মলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন পার্বত্য চট্টগ্রামের উপজেলার জনসাধারণের উন্নয়নের জন্য কাজ করার জন্য উপজেলা পরিষদের দায়িত্ব নিয়েছিলাম কিন্তু দু:খের বিষয় আমাদের সম্মানী ভাতা দীর্ঘদিন বকেয়া থাকলেও তা আমাদের প্রদাণের জন্য সরকারের কোন উদ্যোগ চোখে পড়ছে না। সম্মানী ভাতা সহ ভ্রমন ভাতাও বকেয়া আছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিভিন্ন সময় যোগাযোগ করা হলেও কোন ধরনের সহযোগীতা মন্ত্রণালয় থেকে পাচ্ছেন না বলো অভিযোগ করছেন সাবেক চেয়ারম্যানরা। আগামী জুনের মধ্যে বকেয়া ভাতা পরিশোধ না করলে কঠোর কর্মসূচীর ঘোষনা করবেন বলেও হুঁশিয়ারি দেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যানরা।

রাঙামাটি খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলায় মোট ২৬ টি উপজেলা পরিষদের কোন উপজেলায় ১০ মাস, কোন উপজেলায় ২৪ মাস, কোন উপজেলায় ৩৩ মাস পর্যন্ত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের সম্মানী ভাতা বকেয়া আছে যা প্রায় দুই কোটি টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি জেলার কাউখালি উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান এস, এম, চৌধুরী, রাজস্থলী উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা, নানিয়ারচর উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোয়ালিটি চাকমা, বিলাইছড়ি উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শ্যামা চাকমা, ভাইস চেয়ারম্যান অমৃত সেন তঞ্চঙ্গ্যা, জুরাছড়ি উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান উদয় জয় চাকমা, বরকল উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শুকন্তলা চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষীছড়ি উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমা,খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রনিক ত্রিপুরা।

আরো পড়ুন