শনিবার, ২৮ মে ২০২২

ঈদ বোনাস বঞ্চিত ২৭ শিক্ষকের কর্ম-বিরতি, ইউএনও’র হস্তক্ষেপে স্থগিত

প্রকাশিত: রবিবার, মে ৮, ২০২২

নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) প্রতিনিধি

টানা ৩৬ ঘন্টা কর্ম বিরতি পালন শেষে রোববার বিকেলে তা স্থগিত করেছেন ঈদ বোনাস বঞ্চিত নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ২৭ জন শিক্ষক।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কর্মবিরতি পালনকারী নাইক্ষ্যংছড়ি হাজি এমএ কালাম ডিগ্রি কলেজের সিনিয়র শিক্ষক অধ্যাপক এমদাদুল্লাহ মোঃ ওসমান।

তিনি বলেন, ২৭ জন শিক্ষক ও তাদের পরিবার এবারের ঈদ থেকে বঞ্চিত হয়েছে। কেননা কলেজ অধ্যক্ষের অদূরদর্শীতার কারণে মূলত এ ঘটনা।
এক দিকে ব্যাংকে পর্যাপ্ত টাকা রয়েছে। অপরদিকে কলেজের দায়িত্বরত অভজার্বেশন কর্মকর্তা নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ভূল তথ্য উপস্থাপন।

ফলে শিক্ষকরা হলেন বেসরকারী ঈদ বোনাস থেকে বঞ্চিত হয়েছেন বলে জানান তিনি।

কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ শাহ আলম বলেন, তারা ষড়যন্ত্রের স্বীকার। আর এরই যাতাকলে পড়ে তাদের সন্তান-স্ত্রী তথা দারাপরিবার এবারের ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত। কেননা সরকার ঈদের আগে শিক্ষকদের বেতন ছাড় দিলেও ব্যাংকে টাকা পৌছানোর কারণে কোন শিক্ষক বেতনের মূল অংশ ব্যাংক থেকে উত্তোলন করতে পারেনি।

এদিকে গতবারের মতো বেতনের বেসরকারী অংশ নিতে গিয়ে অধ্যক্ষ আর দায়িত্বরত কর্মকর্তা নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিলে স্বাক্ষর না করায় এ অংশও পান তারা। খালি হাতে বাড়ি ফিরে পরিবারের কাছে মুখ দেখাতে পারেননি মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষকরা।

নিগৃত এ শিক্ষকরা শেষাবধি বাধ্য হয়ে প্রস্তুতি সভা করে কর্মবিরতির মিদ্ধা নেন। অর্থাৎ কলেজ খোলার দিন ৭ মে থেকে তারা ক্লাস বর্জন তথা কর্মবিরতি পালনুরু করেন।

পরে এ খবর সর্বত্র ছড়িয়ে পড়লে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের নির্দেশে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার এক প্রতিনিধি পাঠালে শিক্ষকরা তাদের কর্মবিরতি সাময়িক ভাবে স্থগিত করা হয়।

প্রতিনিধি শিক্ষকদের বলেছেন, আগামী বৃহস্পতিবার ইউএনও -শিক্ষক বৈঠকের পর পরবর্তী করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

কলেজের একাধিক শিক্ষার্থী জানান, শনিবার ও রোববার দু’দিন কোন ক্লাস পারেননি। তাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) জর্জ মিত্র চাকমা বলেন, আগামী বৃহস্পতিবার স্যার সালমা ফেরদৌস কলেজের ২৭ জন শিক্ষকদের নিয়ে বসে এ টি সমাধান করবেন। আসলেও বিষয়টিতে কিছু একটা আছে।

কলেজ অধ্যক্ষ ও আ ম রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এসব কলেজের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

আরো পড়ুন