বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২

আলীকদমে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০২২

বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি::

আলীকদম উপজেলায় মন্ত্রীর প্রতিনিধি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে পদবীর দাপটে দীর্ঘদিন ধরে জমি রেজিস্ট্রি না দিয়ে প্রতারণা করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করলেন মৃত হাতেম আলীর ওয়ারিশরা।

মঙ্গলবার দুপুরে আলীকদম রিপোর্টার্স ক্লাবের অস্থায়ীয় কার্যালয়ে মৃত হাতেম আলীর ওয়ারিশরা সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীর পরিবার। সে সাথে দ্রুত জমি রেজিস্ট্রি পাওয়ার দাবি জানায় পরিবারটি।

সংবাদ সস্মেলনে মৃত হাতেম আলীর নাতি মোঃ বেলাল লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার নানা ১৯৭৭-৭৮ সালে সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিনের বাবা ছিদ্দিক আহাম্মদের কাছ থেকে ২৮৭ নং তৈন মৌজার ৮৩ নং খতিয়ানে ২৫৬৮নং দাগ থেকে ২ একর প্রথম শ্রেণী জমি কিনেন। জমি বায়নামানা পর রেজিস্ট্রি কার্যক্রম শুরু হলে মাঝপথে ছিদ্দিক আহাম্মদ মারা গেলে রেজিস্ট্রি প্রক্রিয়া থেমে যায়।

পরে বেশ কয়েকবার নাছির উদ্দিন চেয়ারম্যানকে জমি রেজিস্ট্রি বিষয়ে বললেও চেয়ারম্যান দীর্ঘদিন ধরে চলচাতুরীর আশ্রয় নিয়ে জমি রেজিস্ট্রি থেকে বিরত থাকেন চেয়ারম্যান। আমাদের অজ্ঞতার ও সরলতার সুয়োগে উক্ত দাগের জায়গা থেকে কিছু অংশ বিক্রি ও দান করার সময় বাধা দিলেও অন্য দাগের জমি দেওয়া হবে বললেও তা করেননি। বরং আমাদের দখলে থাকা পুকুরটিও তিনি দখলে নেন। জমি বিক্রির হুমুকমানা থাকলেও গত ২৩ জুলাই এক নাটকীয় সংবাদ সম্মেলন করে আমাদের জায়গার বিষয়টি এড়িয়ে যান অভিযোগ করেন তিনি।

মোঃ বেলাল আরও বলেন, এরই মধ্যে জায়গা রেজিস্ট্রি দিবে না বলে প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছেন চেয়ারম্যান। অসমাপ্ত জায়গা রেজিস্ট্রি সম্পাদনে সকলে সহযোগিতা কামনা করছি। বর্তমানে জায়গার বিষয়ে কথা বলায় অন্যান্যদের মত হামলা-মামলা ও উচ্ছেদের আশংকায় দিন কাটছে আমাদের।

এই বিষয়ে সদরর চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন বলেন, আমি একা কিছু করতে পারি না। তাদের হাতে থাকা কাগজটি ভূয়া।

দলিলটি ভূয়া হলে এতবছর কিভাবে উক্ত জায়গায় ভুক্তভোগীরা বসবাস করছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, জায়গা সংক্রান্ত বিষয় বিচার দিলে আদালতে দিবে, সংবাদ সম্মেলন করে কি হবে? সংবাদ সম্মেলন করলে কি জায়গা পাওয়া যায়।

আরো পড়ুন