সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

আনোয়ারায় মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশিত: রবিবার, এপ্রিল ২৫, ২০২১

আনোয়ারা: উপজেলায় সত্য ঘটনা ধামাচাপা দিতে মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রবিবার এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী মো.আরিফ। তিনি মিথ্যা হয়রানি মামলা থেকে অব্যাহতি ও ঘটনার ন্যায় বিচার দাবি করেন।

অভিযোগে বলা হয়,অভিযুক্ত মো.ইকবাল গত ১৫ মার্চ রাত ৩টার দিকে আনোয়ারা উপজেলার ওষখাইন গ্রামের জনৈক ইসহাকের ঘরে চুরির উদ্দেশ্যে ঢুকেন। এ সময় ঘরে থাকা লোকজন বিষয়টি টের পেলে ইকবাল পালাতে গিয়ে ঘরের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হন। পরে ধৃত ইকবালকে তার মা ও পরিবারের সদস্যদের জিম্মায় দেওয়া হয়।

এ ঘটনার ২৫ দিন পর গত ১১ এপ্রিল মারধরের অভিযোগ এনে আনোয়ারা থানায় মামলা করেন মো. ইকবাল। ওই মামলায় ভুক্তভোগী মো. আরিফসহ (২৪) তিনজনকে আসামি করা হয়।অন্য দুই আসামি হলেন একই এলাকার মো.মন্নান (৩৫) ও শাখাওয়াত হোসেন (৫৫)।

মূলত চুরির ঘটনা ধামাচাপা দিতেই তাদের বিরুদ্ধে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে হয়রানি করতে এ মিথ্যা মামলা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মো.ইসহাক বলেন, ইকবাল আমার ঘরে চুরি করতে এসে ছাদ থেকে লাফ দিয়ে পড়ে আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে তার ঘরে দিয়ে আসি। এদিকে একমাস পর শোনা যাচ্ছে এলাকার নিরাপরাধ তিনজনের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে থানায় করেছেন তিনি।

ভুক্তভোগী মো.মন্নান বলেন,ঘটনার দিন আমি শহরে ছিলাম। তাকে কেউ মারেনি,চুরি করতে গিয়ে ছাদ থেকে পড়ে ইকবাল আহত হয়েছে। অহেতুক হয়রানি করতে আমাকে মিথ্যা মামলায় আসামি করেছে।

অভিযুক্ত মো.ইকবাল বলেন,আমার বিরুদ্ধে আনা চুরির অভিযোগ মিথ্যা। আমার ওপর যারা হামলা করেছে তাদেরকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আনোয়ারা থানার এসআই নওফেল আহমেদ বলেন, মারধরের অভিযোগ এনে মো.ইকবাল বাদি হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছে। বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

আরো পড়ুন