সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন বিএনপি নেতা ইশরাক

প্রকাশিত: রবিবার, জানুয়ারী ২২, ২০২৩

নিউজ ডেস্ক :


গাড়ি পোড়ানোর মামলায় জামিন পেলেন বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেন। রোববার (২২ জানুয়ারি) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাতুল রাকিবের আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে একই আদালতে রাজধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন তিনি।

জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইশরাকের আইনজীবী মহিউদ্দিন চৌধুরি।

এর আগে গত বছরের (২০২২ সাল) ৬ এপ্রিল মতিঝিল থেকে ইশরাক হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওইদিন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে শ্রমিক দলের লিফলেট বিতরণ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। গ্রেফতারের পরই তাকে আদালতে হাজির করা হয়েছিল। তখন পুলিশ জানিয়েছিল, গাড়ি পোড়ানোর পুরোনো একটি মামলায় ইশরাককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারের পর তখন ইশরাকের আইনজীবী জামিন আবেদন করলে তা নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠান ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) তামান্না ফারহার আদালত। এরপর একই বছরের ১২ এপ্রিল ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে ফের ইশরাকের জামিন আবেদন করা হয়। তখন শুনানি শেষে বিচারক জামিন মঞ্জুর করেন। এরপর থেকে এ মামলায় জামিনে ছিলেন ইশরাক।

এরপর গত বছরের ৫ ডিসেম্বর তিনি আদালতে হাজির না হয়ে সময়ের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

গাড়ি পোড়ানোর সেই মামলায় বলা হয়, ২০২০ সালের ১২ নভেম্বর ঢাকা-১৮ আসনের নির্বাচন বানচাল করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিপরীত পাশে অগ্রণী ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পুড়িয়ে মারার জন্য গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন আসামিরা। এতে গাড়িতে থাকা যাত্রীরা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান।

মতিঝিল থানায় মামলাটি করেছিলেন পুলিশের তৎকালীন উপ-পরিদর্শক আতাউর রহমান ভূঁইয়া। এতে ইশরাকসহ ৪২ জনকে আসামি করা হয়।

ইশরাক হোসেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশবিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সদস্য। এছাড়া তিনি ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে।

আরো পড়ুন