শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

অর্থ আত্মসাৎ: ফারইস্ট লাইফের সাবেক সিইও গ্রেফতার

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২

শেয়ারবাজারের তালিকাকাভুক্ত ফারইস্ট ইসলামী লাইফের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হেমায়েত উল্লাহকে ৮শ’ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পদ্মা ইসলামী লাইফের কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

শাহবাগ থানায় দায়েরকৃত ৮শ’ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় ফারইস্ট ইসলামী লাইফের সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ও সাবেক দুই পরিচালক এম এ খালেক ও তার ছেলে রুবাইয়াত খালেদকে গ্রেফতার করে আইন-শৃংখলা বাহিনী। এই মামলার ১০ নং এজাহারভুক্ত আসামি হেমায়েত উল্লাহ।

উল্লেখ্য, প্রাইম এশিয়া ফাউন্ডেশন এবং পিএফআই প্রোপার্টিজ লিমিটেড নামক দু’টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ফারইস্ট ইসলামী লাইফের ১৫৮তম পর্ষদ সভার ভুয়া সার-সংক্ষেপ তৈরি করে সেটির বরাত দিয়ে কোম্পানিটির ৭০ কোটি ৬৯ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে এই মামলা দায়ের করে দুদক।

আসামীদের ২ দিনের রিমান্ড ও এম এ খালেক ও রুবাইয়াত খালেককে জেলে গেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেয় আদালত। প্রত্যেককে ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে দ্বিতীয় দফায় একদিনের রিমান্ড শেষে রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সাবেক চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ফের ১২ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম তার ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একইদিন মামলার আসামি কোম্পানিটির সাবেক পরিচালক এম এ খালেক এবং তার ছেলে রুবাইয়াত খালেদকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর শাহবাগ থানায় করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাদের ১৫ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

এদিকে, আসামির পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দু’দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।

গ্রাহকের ৮শ’ কোটি টাকার বেশি আত্মসাতের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতে শাহবাগ থানায় মামলা করা হয়। মামলার পর তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা গেছে, চলতি বছরের ৮ মার্চ ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সাবেক চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম ও সাবেক পরিচালক এম এ খালেকসহ কোম্পানিটির ৯ পরিচালক-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ।

সূত্র: শেয়ার নিউজ

আরো পড়ুন